অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত হলেই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ

কেউ অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত হলেই তার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ হয় বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, ‘ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ একটি চলমান প্রক্রিয়া। যে যখন শনাক্ত হয়, অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত হয়; তখনই তার বিরুদ্ধে নানা ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।’ শুক্রবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজধানীর খামারবাড়ি পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে রাজধানীর মতিঝিল, গুলিস্তান, ধানমন্ডি, উত্তরা, গুলশান ও বনানীসহ সারাদেশে ক্যাসিনো ও জুয়ার হাউজগুলোতে অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব ও পুলিশ। এসব ঘটনায় অনলাইন ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িত অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের অনেকেই যুবলীগ নেতা। এই পরিস্থিতিতে গত ৩ অক্টোবর যুবলীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট তলব করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এছাড়া গত ২২ সেপ্টেম্বর ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও তার স্ত্রী ফারজানা চৌধুরী, যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের ব্যাংক হিসাব তলবের পর জব্দ করে বাংলাদেশ ফিন্যানসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট।

বর্তমান সরকারের আমলে পূজা উদযাপনের অগ্রগতি হয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যখন প্রথম ক্ষমতায় (২০০৮) আসি, তখন সারাদেশে পূজামণ্ডপ ছিল ২০ থেকে ২২ হাজার। কিন্তু এরপর থেকে বছরে অন্তত এক হাজার করে পূজামণ্ডপ বাড়ছে। সারাদেশে এখন ৩৩ হাজার মণ্ডপে পূজা উদযাপন হচ্ছে। ঢাকাতেও পূজামণ্ডপ বেড়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *