মাদকের বিরুদ্ধে ঢাকার ‘জিরো টলারেন্স’

ক্রাইম নিউজ সার্ভিস ॥ জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশের বর্তমান সরকার মাদকের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সতর্কতা ও ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, মাদক ব্যবসাসহ এ সংক্রান্ত অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের কঠোরভাবে মোকাবিলা করা হচ্ছে। রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন জাতিসংঘের চলতি ৭৩তম অধিবেশনের তৃতীয় কমিটির আওতায় বৃহস্পতিবার ‘আন্তর্জাতিক মাদক নিয়ন্ত্রণ’ শীর্ষক এক আলোচনায় বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন।

এ প্রসঙ্গে স্থায়ী প্রতিনিধি উল্লেখ করেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্পষ্ট বার্তা হলো, ‘আমরা জঙ্গিবাদ দমন করেছি, এখন মাদকের ছোবল থেকে দেশ বাঁচাতে পদক্ষেপ নিচ্ছি।’ রাষ্ট্রদূত তার বক্তৃতায় গত ২৪শে সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের ৭৩তম অধিবেশনের হাই-লেভেল সপ্তাহে ‘গ্লোবাল কল টু অ্যাকশন অন ওয়ার্ল্ড ড্রাগ প্রবলেম’ শীর্ষক উচ্চ পর্যায়ের ইভেন্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগদানের বিষয়টি তুলে ধরেন। ওই ইভেন্টে বিশ্বব্যাপী মাদক সমস্যার কার্যকর সমাধান ও প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ যে প্রতিশ্রুতি দেন সে বিষয়েও তিনি আলোকপাত করেন।

স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বলেন, ‘মাদকের ছোবলে আমাদের যুবসমাজের ভবিষ্যৎ নষ্ট হোক তা কোনোভাবেই আমরা হতে দিবো না।’ মাদক নিয়ন্ত্রণ, মাদকের অবৈধ ব্যবসা ও চোরাচালান বন্ধে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা যেসব কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে তার উল্লেখ করে তিনি বলেন, এক্ষেত্রে প্রতিবেশী দেশসমূহের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর এবং সীমান্তে মাদক নিয়ন্ত্রণে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা রক্ষার মাধ্যমে বাংলাদেশ কাজ করে যাচ্ছে। রাষ্ট্রদূত মাসুদ বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সম্মিলিত প্রচেষ্টা, রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন এবং অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে মাদকের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেতে কার্যকর প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সক্ষম হবো।’।

এই সংক্রান্ত আরো নিউজ

Leave a Comment