মৌলভীবাজারে ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

ক্রাইম নিউজ সার্ভিস ॥ দীর্ঘদিন ধরে তিনি মাদকের ব্যবসা করছিলেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক অপরাধী। তিনি প্রায়ই এলাকায় বলে বেড়াতেন, তাঁর হাত অনেক লম্বা। পুলিশ ধরতে পারবে না। ধরলে পুলিশকে বদলি করার ক্ষমতা আছে তাঁর। তবে তাঁর সেই অহংকার ভেঙে গেছে। আজ রোববার ভোরে ইয়াবা ভাগ-বাঁটোয়ারাকালে দুই মাদক ব্যবসায়ীসহ তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
‘হাত লম্বা’ এ ব্যক্তির নাম মখলিছ মিয়া (৪২)। তিনি মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী কোনাগাঁও গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেপ্তার হওয়া অপর দুই ব্যক্তি হলেন একই ইউনিয়নের বিরইনতলা গ্রামের হায়দর মিয়া (৩২) ও কোনাগাঁওয়ের আবদুর রহমান (৩০)।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মখলিছের বাড়িতে আটক ব্যক্তিরা ভারত থেকে পাচার করে আনা ইয়াবা বিক্রির উদ্দেশ্যে ভাগ-বাঁটোয়ারা করছিলেন। এ রকম তথ্যের ভিত্তিতে জুড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার ও পরিদর্শক (তদন্ত) সুধীন চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ভোর পাঁচটার দিকে তাঁর বাড়ি ঘেরাও করে। একপর্যায়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতরে তিনজনকে পেয়ে আটক করা হয়। তল্লাশি চালিয়ে তিনজনের কাছে ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়। সকাল ১০টার দিকে থানার এসআই সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন।
ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, ‘আমি কিছুদিন হয় এখানে (জুড়ী থানা) যোগদান করেছি। পরে জানতে পারি, মখলিছ পুলিশকে কোনো পরোয়া করেন না। এলাকায় পুলিশ সম্পর্কে আজেবাজে মন্তব্য করে বেড়ান। এরপর তাঁকে আটকের জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালাই। মখলিছ ও হায়দর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক অপরাধী। গ্রেপ্তার হওয়া তিনজনকে মৌলভীবাজার আদালতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়ে আদালতের কাছে আবেদন করা হবে।’

এই সংক্রান্ত আরো নিউজ

Leave a Comment