যারা রাষ্ট্রের জন্য ঝুঁকি নিচ্ছেন তাদের কোনও ঝুঁকিভাতা নেই

ক্রাইম নিউজ সার্ভিস্‌, এস এম নূরুজ্জামান ॥ গত ১৫ মার্চ সীতাকুণ্ডে জঙ্গিবিরোধী অভিযান ‘অপারেশন অ্যাসল্ট ১৬’ পরিচালনাকারী সোয়াত টিমের সব সদস্য স্প্লিন্টারবিদ্ধ হয়েছিলেন। আহতদের মধ্যে কনস্টেবল শাওরিনের অবস্থা এখনও গুরুতর। চিকিৎসকরা বলছেন, আর কখনও তিনি স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবেন না। তাহলে শাওরিনের ভবিষ্যৎ কী? এমন প্রশ্নে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘শুধু শাওরিন নয়। বোম্ব ডিসপোজাল টিমসহ পুলিশের আরও অনেক সদস্য এখনও স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতে পারছেন না। কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে, যারা রাষ্ট্রের জন্য এত ঝুঁকি নিচ্ছেন, তাদের জন্য কোনও ঝুঁকিভাতা নেই।’

কনস্টেবল শাওরিন বর্তমানে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। জঙ্গিদের আত্মঘাতী বোমার আঘাতে তার হাতের আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে, পায়ে ফ্র্যাকচার ও মুখের এক পাশের চোয়াল উড়ে গেছে। অভিযানের সাড়ে ছয় মাস পরও স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেননি তিনি।

ঝুঁকিভাতা না থাকা নিয়ে অতি ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিতদের মধ্যে আক্ষেপ ও হতাশা রয়েছে। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দেনদরবার করছেন তারা। সম্প্রতি পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যদের ঝুঁকি ভাতাবিষয়ক একটি প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সেখানে একশ’ ভাগ ঝুঁকিভাতার প্রস্তাব করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তবে এই খবরে খুব একটা খুশি নন ঢাকা মহানগর পুলিশ, গোয়েন্দা ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্র্যান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের বিভিন্ন টিমের কর্মকর্তারা। তারা দু’শ’ ভাগ ঝুঁকিভাতার দাবি জানিয়েছেন।

একশ’ ভাগ ঝুঁকিভাতার খবরে হতাশ হওয়ার কারণ সম্পর্কে সোয়াতের (স্পেশাল উইপনস অ্যান্ড ট্যাকটিকস) একজন কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ ও বিএসটিআই’র মতো প্রতিষ্ঠানের সদস্যদের দু’শ’ ভাগ ঝুঁকিভাতা দেওয়া হয়। অথচ ঝুঁকির কাজে নিয়োজিত পুলিশ সদস্য ও কর্মকর্তাদের কেন একই পরিমাণ ঝুঁকিভাতা দেওয়া হবে না?’

ঢাকা মহানগর পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও সিটিটিসির কর্মকর্তারা জানান, হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা প্রতিরোধ থেকে শুরু করে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা ও সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। অনেকে এখনও আহত অবস্থায় জীবন-যাপন করছেন। অথচ কনস্টেবল থেকে উপ-পরিদর্শক পর্যন্ত সর্বোচ্চ এক হাজার আটশ’ টাকার মতো ঝুঁকিভাতা দেওয়া হলেও পরিদর্শক থেকে ওপরের পদমর্যাদার কোনও পুলিশ কর্মকর্তাকে এক টাকাও ঝুঁকিভাতা দেওয়া হয় না। এমনকি, ঝুঁকিপূর্ণ অভিযান পরিচালনার জন্য গঠিত বিশেষ ইউনিট সিটিটিসির বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, সোয়াত ও অস্ত্র উদ্ধার টিমের সদস্যরাও কোনও ঝুঁকিভাতা পান না।

হলি আর্টিজানে অভিযান চালাতে গিয়ে সহকারী কমিশনার রবিউল ইসলাম ও ওসি সালাহউদ্দীন নিহত হয়েছেন। এছাড়া স্প্লিন্টারবিদ্ধ হয়েছেন অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আবদুল আহাদসহ অনেক কর্মকর্তা ও সদস্য।

ঢাকা মহারগর পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেন, সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবনায় একশ’ ভাগ ঝুঁকিভাতা দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। সেটি এখন অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাস হওয়ার অপেক্ষায় আছে। এরপর থেকেই পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্য ও কর্মকর্তাদের মধ্যে ভাতার পরিমাণ নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ শাখার উপ-কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান বলেন, ‘বর্তমানে কনস্টেবল থেকে উপ-পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের সর্বোচ্চ এক হাজার ৮০০ টাকার মতো ঝুঁকিভাতা দেওয়া হয়। পরিদর্শক থেকে তার ওপরের পদমর্যাদার কোনও কর্মকর্তা ঝুঁকিভাতা পান না।’

বোম্ব ডিসপোজাল টিমের একজন কর্মকর্তা জানান, এ টিমের সদস্যরা যেভাবে ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করেন সেরকম ঝুঁকির মাত্রা পৃথিবীর অন্য কোনও কাজে নেই। অথচ পুলিশের এই টিমের ঝুঁকিভাতার বিষয়টি এখনও ঝুলে আছে।’

একই আক্ষেপ অস্ত্র উদ্ধার টিমের কর্মকর্তাদেরও। এই টিমের একজন কর্মকর্তা বলেন, কিছুদিন আগেও অস্ত্র উদ্ধার করতে গিয়ে সহকারী কমিশনার রাহুল সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হয়েছেন। অথচ তার নামে কোনও ঝুঁকিভাতা নেই।

ইনসেনটিভ কিংবা ঝুঁকিভাতা না থাকার কারণে অনেক সদস্য প্রশিক্ষণ নিয়েও ঝুঁকিপূর্ণ অভিযানে যেতে উৎসাহ দেখান না বলে জানিয়েছেন বোম্ব ডিসপোজাল টিম ও সোয়াতের একাধিক কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিটিটিসির সোয়াত টিমের সহকারী কমিশনার মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘ঝুঁকি নিয়েই পেশাগত কাজ করতে হয়। এর বাইরে অন্য কোনও বিকল্প পথে বা ঝুঁকিমুক্ত পুলিশিংয়ের পথ আমাদের সামনে খোলা নেই।’

গোয়েন্দা পুলিশের তথ্যমতে, গত এক বছরে রাজধানী ঢাকা ও সিলেটে বোম্ব ডিসপোজাল টিম এবং সোয়াতের অন্তত ১১ জন সদস্যের হতাহতের ঘটনায় এক ধরনের ক্ষোভ ও হতাশার মধ্যে দায়িত্ব পালন করছেন টিমগুলোর সদস্যরা।

Please follow and like us:
0

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

SuperWebTricks Loading...