আশুলিয়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা

CNS

ক্রাইম নিউজ সার্ভিসঃ ধামরাই প্রতিনিধিঃ আশুলিয়ায় হাসিনা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের পর তাকে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে। রোববার দুপুরে আশুলিয়ার গাজিরচট হক মার্কেট এলাকা থেকে গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত হাসিনা হক মার্কেট এলাকায় একটি বাড়ির কেয়ারটেকার ছিলেন। তার সঙ্গে তার মা ও ৪ বছরের শিশুসন্তান থাকতো। নিহত হাসিনার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের জেলার দৌলতপুরে। হত্যার সময় শিশু সন্তানটি মায়ের সঙ্গে থাকলেও প্রাণে বেঁচে গেছে।

নিহতের ছোট ভাই হারুন বলেন, আমার বোনের হত্যাকরীদের বিচার চাই।

তবে কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে এ বিষয়ে কিছু বলতে পারেননি তিনি।

পুলিশ জানায়, স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে নিজ ঘরে গলাকাটা অবস্থায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সাভার সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আমরা বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।

এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়েরের হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে তকে কে বা কাহারা গৃহবধুকে হত্যা করলো তা জানতে পারেনি পুলিশ। তবে গৃহবধুকে ধর্ষণ করা হয়েছে এবং ধর্ষককে চিনতে পারার কারণে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে- এমনটি ধারনা করছে পুলিশ।

এই সংক্রান্ত আরো নিউজ

Leave a Comment