মাদারীপুরে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৩ মামলা

ক্রাইম নিউজ সার্ভিস, মাদারীপুর: মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর উপর হামলার মামলায় গ্রেফতার ফাহিম বন্দুকযুদ্ধে নিহতের ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সদর থানার এসআই বারেক হাওলাদার বাদী হয়ে শনিবার রাত ৮টার দিকে এ মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাতদের আসামি করে ফাহিম নিহতের ঘটনায় ১টি, পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় ১টি ও অস্ত্র ও গুলি উদ্ধারে আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, শনিবার রাত ৯টার দিকে পুলিশ বাদী হয়ে ৩টি মামলা দায়ের করেছে। মামলা ৩টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে এবং ফাহিমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এখন অভিযান চালানো হবে।

দুপুরে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শশাঙ্ক ঘোষ, মেডিকেল অফিসার ডা. অখিল সরকার, মেডিকেল অফিসার শফিকুল ইসলাম রাজীব ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন। এদিকে সন্ধ্যায় ফাহিমের বাবা গোলাম ফারুকের কাছে ফাহিমের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। পরিবারের কাছ থেকে জানা গেছে, ফাহিমের মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের দাড়িয়ারপুর এলাকায় দাফন করা হবে।

উল্লেখ্য, বুধবার সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর নিজ ভাড়া বাসায় হামলা চালিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় গোলাম সাইফুল্লাহ ফাহিমকে (২০) আটক করে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার পুলিশ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করে। এদিকে শুক্রবার বিকেলে ফাহিমকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরপর তাকে নিয়ে অভিযানে গেলে শনিবার সকালে সদর উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মিয়ারচর গ্রামে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয় ফাহিম।

Please follow and like us:
0

Related posts

Leave a Comment