প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় প্রণব মুখার্জীর সঙ্গে সাক্ষাত করেননি খালেদা

ক্রাইম নিউজ সার্ভিসঃ আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছিল। তাই আমি ভারতের প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখার্জীর ঢাকা সফরের সময় তার সঙ্গে সাক্ষাত করতে পারিনি। পাশাপাশি এবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আমার সাক্ষাত বানচালের চেষ্টা করেছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার। দ্য সানডে গার্ডিয়ানকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

৭ই জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাত শেষে খালেদা জিয়ার সাক্ষাতকার গ্রহণ করেন সাংবাদিক সৌরভ স্যানাল। এতে খালেদা জিয়া মোদির সঙ্গে তার সাক্ষাতের বিস্তারিত তুলে ধরেন। তার দলকে ভারতবিরোধী বলে আখ্যায়িত করে যে প্রচারণা হয় তার বিরুদ্ধে তিনি কথা বলেন।

ওই সাক্ষাতকারে মোদির সঙ্গে বৈঠককে তিনি অতি সন্তোষজনক বলে অভিহিত করেন।

খালেদা বলেন, মোদিজির সঙ্গে সাক্ষাৎকার ছিল চমৎকার। আমি অবশ্যই বলবো যে, ওই সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হয়েছে অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে। এতে আমি সন্তুষ্ট। আপনারা জানেন যে ওই বৈঠক হয়েছিল ওয়ান-টু-ওয়ান। আমি আসলে পুরোটা বলতে পারবো না যে, আমরা আসলে কি কি বিষয়ে কথা বলেছি। তবে সুনির্দিষ্টভাবে এটা ছিল অত্যন্ত সন্তোষজনক বৈঠক।

মোদির সঙ্গে খালেদা জিয়ার সাক্ষাৎ হবে কি হবে না এমন একটি দোলাচল যখন সৃষ্টি হয় সে সময় সম্পর্কে তিনি বলেন, আমি কি কখনও বলেছি মোদিজির সঙ্গে আমি বৈঠক করব না। নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর তাকে আমি ব্যক্তিগতভাবে অভিনন্দন জানিয়েছি।

তিনি প্রশ্ন রাখেন, আপনি কি আমার দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের একজন নেতাকর্মীর মুখ থেকে শুনেছেন যে, আমি মোদিজির সঙ্গে বৈঠক করব না। বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশের নেতা মোদিজি। তিনি দু’দেশের মধ্যকার বন্ধন শক্তিশালী করার লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশ সফরে এসেছেন।

Please follow and like us:
0

Related posts

Leave a Comment