গ্রেপ্তারের পর ডাকাতির আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

CNS

ক্রাইম নিউজ সার্ভিসঃ রাজবাড়ীর পাংশায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ডাকাতি মামলার এক আসামির মৃত্যু হয়েছে, যাকে ঘটনার কয়েক ঘণ্টা আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে কলিমহর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের একটি বাঁশবাগানে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে বলে পাংশা থানার ওসি আবু শামা ইকবাল হায়াত জানান।

নিহত আব্দুর রব (২৮) পাংশার কলিমহর ইউনিয়নের ফলিমারা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতির অভিযোগে পাংশাসহ বিভিন্ন থানায় তিনটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের ভাষ্য।

ওসি ইকবাল হায়াত বলেন, রব আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। সে ও তার দলের লোকেরা মাহসড়কে গাছ ফেলে ডাকাতিতে জড়িত। পাংশা থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাত ১১টার দিকে রবকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করলে তা উদ্ধারে তাকে নিয়ে গোপালপুর গ্রামে যায় পুলিশের একটি দল। ওই বাঁশবাগানে অবস্থান নিয়ে থাকা রবের সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি শুরু করে। আত্মরক্ষার জন্য পুলিশও পাল্টা গুলি করে। গোলাগুলির মধ্যে রব আহত হয়।

গুলিবিদ্ধ রবকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকালের দিকে তার মৃত্যু হয় বলে জানান ওসি।

তিনি বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ানশুটার গান ও গুলি উদ্ধার করেছে।

চার দিন আগে পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউনিয়নের বুড়ুরিয়া গ্রামে একইভাবে এক কথিত বন্দুকযুদ্ধে আব্দুস সোবহান খান (৪৯) নামে আরেকজন নিহত হন। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, হত্যা, হত্যাচেষ্টা ও অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে ছয়টি মামলা থাকার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

Please follow and like us:
0

Related posts

Leave a Comment